Latest News

কলেজের উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্য



 
  • প্রত্যেক শিক্ষককে অনধিক ১৫ জন শিক্ষার্থীদের তত্ত্বাবধানের দায়িত্ব দেওয়া হয় এবং প্রতিদিন কলেজ ত্যাগের পূর্বে উক্ত শিক্ষকের কাছে হাজিরা দিতে হবে।
  • শিক্ষাবর্ষের শুরুতে শিক্ষার্থীদের হাতে একাডেমিক ক্যালেন্ডার ও পাঠ পরিকল্পনাক্লাস রুটিনদুটির তালিকা ও বিভিন্ন পরীক্ষার মুল্যায়ন শীট সম্বলিত প্রসপেক্টাস সরবরাহ করা হয়।
  • অনিবার্য কারণ ব্যতীত অগ্রাধিকার ভিত্তিতে শ্রেণি পাঠদান অব্যাহত থাকে।
  • সঠিক সময়ে টিউটোরিয়াল পরীক্ষা সম্পন্ন করন ও ফলাফল অভিভাবকদের অবহিত করা হয়।
  • কলেজের আইসিটি ল্যাবের পরিধি বৃদ্ধি করার মাধ্যমে আইসিটি ব্যবহারিক ক্লাস আরও কার্যকর করা হয়েছে।
  • শিক্ষার্থীদের উপার্জনক্ষম করে গড়ে তোলার জন্য আউটসোর্সিং বিষয়ে অভিজ্ঞ শিক্ষকমন্ডলী প্রাথমিক ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করেছেন।
  • নির্ধারিত সময়ে সকল কার্যক্রম সম্পন্নকরণবিশেষ করে পরীক্ষা গ্রহণফলাফল প্রকাশপর্যালােচনা ও মূল্যায়ন ব্যবস্থা করা হয় ।
  • কৃতি শিক্ষার্থীদের আনুষ্ঠানিকভাবে পুরস্কৃত করার ব্যবস্থা চলমান রয়েছে।
  • শিক্ষার্থীদের ক্লাসে অনুপস্থিতি রোধক্লাস মুখীকরণ ও একঘেয়েমি দূরীকরণে অভিভাবকের সাথে। যোগাযোগে ও নিয়মিত সহপাঠ কার্যক্রম (খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড) পরিচালিত হচ্ছে।
  • শ্রেণির শিক্ষা কার্যক্রমের বাইরে জ্ঞান অর্জনের জন্য যুগোপযোগী লাইব্রেরিসেমিনার ও কমনরুমের উন্নয়নের প্রক্রিয়া অব্যাহত রয়েছে।
  • আগামী দিনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় অপরাপর শিক্ষার পাশাপাশি তথ্য ও যোগাযোগে প্রযুক্তি শিক্ষার প্রতি বিশেষ গুরুত্বারোপ করা হয়েছে।
  • শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ে দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে কলেজ কর্তৃপক্ষ আধুনিক বিজ্ঞান গবেষণাগার। ও বিজ্ঞান ক্লাব প্রতিষ্ঠান নীতিগত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।
  • সর্বোপরি প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে নিয়মিত কলেজে উপস্থিত থাকতে হবে। অন্যথায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে ।